ইষ্রা 2

1 যাদের বন্দী করে রাখা হয়েছিল, বাবিলের রাজা নবূখদনিত্সর তাদেরকে বাবিলে বন্দী করে নিয়ে গিয়েছিলেন, তাদের মধ্যে প্রদেশের এই লোকেরা বন্দীদশা থেকে যাত্রা করে যিরূশালেমে ও যিহূদাতে নিজেদের নগরে ফিরে এল; 2 এরা সরুব্বাবিল, যেশূয়, নহিমিয়, সরায়, রিয়েলার, মর্দখয়, বিলশন, মিস্পর, বিগবয়, রহূম ও বানা এনাদের সঙ্গে ফিরে এল৷ সেই ইস্রায়েল লোকেদের পুরুষের সংখ্যা; 3 পরোশের বংশধরদের সংখ্যা দুই হাজার একশো বাহাত্তর জন৷ 4 শফটিয়ের বংশধরদের সংখ্যা তিনশো বাহাত্তর জন৷ 5 আরহের সন্তান সাতশো পঁচাত্তর জন৷ 6 বংশধরদের সংখ্যা যেশূয় ও যোয়াবের বংশধরদের মধ্যে পহৎ-মোয়াবের বংশধর দুই হাজার আটশো বারো জন৷ 7 বংশধরদের সংখ্যা এলমের বংশধর এক হাজার দুশো চুয়ান্ন জন৷ 8 বংশধরদের সংখ্যা সত্তূর বংশধর নশো পঁয়তাল্লিশ জন৷ 9 সক্কেয়ের বংশধর সাতশো ষাট জন৷ 10 ১০ বানির বংশধর ছয়শো বিয়াল্লিশ জন৷ 11 ১১ বেবয়ের বংশধর ছয়শো তেইশ জন৷ 12 ১২ অসগদের বংশধর এক হাজার দুশো বাইশ জন৷ 13 ১৩ অদোনীকামের বংশধর ছয়শো ছেষট্টি জন৷ 14 ১৪ বিগবয়ের বংশধর দুই হাজার ছাপ্পান্ন জন৷ 15 ১৫ আদীনের বংশধর চারশো চুয়ান্ন জন৷ 16 ১৬ যিহিষ্কিয়ের বংশের আটেরের বংশধর আটানব্বই জন৷ 17 ১৭ বেৎসয়ের বংশধর তিনশো তেইশ জন৷ 18 ১৮ যোরাহের বংশধর একশো বারো জন৷ 19 ১৯ হশুমের বংশধর দুশো তেইশ জন৷ 20 ২০ গিব্বরের বংশধর পঁচানব্বই জন৷ 21 ২১ বৈৎলেহমের বংশধর একশো তেইশ জন৷ 22 ২২ নটোফার লোক ছাপ্পান্ন জন৷ 23 ২৩ অনাথোতের লোক একশো আঠাশ জন৷ 24 ২৪ অসমাবতের বংশধর বেয়াল্লিশ জন৷ 25 ২৫ কিরিয়ৎ-আরীম, কফীরা ও বেরোতের বংশধর সাতশো তেতাল্লিশ জন৷ 26 ২৬ রামার ও গেবার বংশধর ছয়শো একুশ জন৷ 27 ২৭ মিকমসের লোক একশো বাইশ জন৷ 28 ২৮ বৈথেলের ও অয়ের লোক দুশো তেইশ জন৷ 29 ২৯ নবোর বংশধর বাহান্ন জন৷ 30 ৩০ মগবীশের বংশধর একশো ছাপ্পান্ন জন৷ 31 ৩১ অন্য এলমের বংশধর এক হাজার দুশো চুয়ান্ন জন৷ 32 ৩২ হারীমের বংশধর তিনশো কুড়ি জন৷ 33 ৩৩ লোদ, হাদীদ ও ওনোর বংশধর সাতশো পঁচিশ জন৷ 34 ৩৪ যিরিহোর বংশধর তিনশো পঁয়তাল্লিশ জন৷ 35 ৩৫ সনায়ার বংশধর তিন হাজার ছয়শো ত্রিশ জন৷ 36 ৩৬ যাজকেরা; যেশূয় বংশের মধ্যে যিদয়িয়ের বংশধর নয়শো তেয়াত্তর জন৷ 37 ৩৭ ইম্মেরের বংশধর এক হাজার বাহান্ন জন৷ 38 ৩৮ পশহূরের বংশধর এক হাজার দুশো সাতচল্লিশ জন৷ 39 ৩৯ হারীমের বংশধর এক হাজার সতের জন৷ 40 ৪০ লেবীয়েরা; হোদবিয়ের বংশধরদের মধ্যে যেশূয় ও কদমীয়েলের বংশধর চুয়াত্তর জন৷ 41 ৪১ গায়কেরা; আসফের বংশধর একশো আঠাশ জন৷ 42 ৪২ দারোয়ানদের বংশধররা; শল্লুমের বংশধর, আটেরের বংশধর, টলমোনের বংশধর, অক্কুবের বংশধর, হটীটার বংশধর, শোবয়ের বংশধর মোট একশো ঊনচল্লিশ জন৷ 43 ৪৩ নথীনীয়েরা (মন্দিরের কর্মচারীরা); সীহের বংশধর, হসূফার বংশধর, টব্বায়োতের বংশধর, 44 ৪৪ কেরোসের বংশধর, সীয়ের বংশধর, পাদোনের বংশধর, 45 ৪৫ লবানার বংশধর, হগাবের বংশধর, অক্কুবের বংশধর, 46 ৪৬ হাগবের বংশধর, শময়লের বংশধর, হাননের সন্তান, 47 ৪৭ গিদ্দেলের বংশধর, গহরের বংশধর, রায়ার বংশধর, 48 ৪৮ রৎসীনের বংশধর, নকোদের বংশধর, গসমের বংশধর, 49 ৪৯ উষের বংশধর, পাসেহের বংশধর, বেষয়ের বংশধর, 50 ৫০ অস্নার বংশধর, মিয়ূনীমের বংশধর, নফূষীমের বংশধর; 51 ৫১ বকবূকের বংশধর, হকূফার বংশধর, হর্হূরের বংশধর, 52 ৫২ বসলূতের বংশধর, মহীদার বংশধর, হর্শার বংশধর, 53 ৫৩ বর্কোসের বংশধর, সীষরার বংশধর, তেমহের বংশধর, 54 ৫৪ নৎসীহের বংশধর, হটীফার বংশধররা৷ 55 ৫৫ শলোমনের দাসদের বংশধররা; সোটয়ের বংশধর, হসসোফেরতের বংশধর, পরূদার বংশধর; 56 ৫৬ যালার বংশধর, দর্কোনের বংশধর, গিদ্দেলের বংশধর, 57 ৫৭ শফটিয়ের বংশধর, হটীলের বংশধর, পোখেরৎ-হৎসবায়ীমের বংশধর, আমীর বংশধররা৷ 58 ৫৮ নথীনীয়েরা (যারা মন্দিরের কাজ করত) ও শলোমনের দাসদের বংশধররা মোট তিনশো বিরানব্বই জন৷ 59 ৫৯ আর তেল-মেলহ, তেল-হর্শা, করূব, অদ্দন ও ইম্মের, এক সব জায়গা থেকে নিচে লেখা লোকেরা এল, কিন্তু তারা ইস্রায়েলীয় কি না, এ বিষয়ে তারা তাদের পূর্বপুরুষদের কিংবা বংশের প্রমাণ দিতে পারল না; 60 ৬০ দলায়ের বংশধর, টোবিয়ের বংশধর, নকোদের বংশধর ছয়শো বাহান্ন জন৷ 61 ৬১ আর যাজক বংশধরদের মধ্যে হবায়ের বংশধর, হক্কোসের বংশধর ও বর্সিল্লয়ের বংশধরেরা; এই বর্সিল্লয় গিলিয়দীয় বর্সিল্লয়ের একটি মেয়েকে বিয়ে করে তাদের নামে পরিচিত হয়েছিল৷ 62 ৬২ বংশাবলিতে নথিভুক্ত লোকেদের মধ্যে এরা নিজেদের বংশতালিকা খুঁজে পেল না, তাই তারা অশুচি বলে যাজকত্ব পদ হারালো৷ 63 ৬৩ আর শাসনকর্ত্তা তাদেরকে বললেন, “যে পর্যন্ত ঊরীম ও তুম্মীমের অধিকারী একজন যাজক তৈরী না হয়, ততদিন তোমরা অতি পবিত্র জিনিস খাবে না৷” 64 ৬৪ জড়ো হওয়া সমস্ত সমাজ মোট বিয়াল্লিশ হাজার তিনশো ষাট জন ছিল৷ 65 ৬৫ তাছাড়াও তাদের সাত হাজার তিনশো সাঁইত্রিশ জন দাসদাসী ছিল, আর তাদের মন্দিরে দুশো জন গায়ক ও গায়িকা ছিল৷ 66 ৬৬ তাদের সাতশো ছত্রিশটি ঘোড়া, দুশো পঁয়তাল্লিশটি ঘোড়ার রথ, 67 ৬৭ চারশো পঁয়ত্রিশটি উট ও ছয় হাজার সাতশো কুড়িটি গাধা ছিল৷ 68 ৬৮ পরে পুর্বপুরুষদের বংশের প্রধানদের মধ্যে কতগুলি লোক সদাপ্রভুর যিরূশালেমের বাড়ির কাছে আসলে ঈশ্বরের সেই বাড়ি নিজের জায়গায় স্থাপন করার জন্য সম্পূর্ণ ইচ্ছায় দান করল৷ 69 ৬৯ তারা নিজেদের শক্তি অনুসারে ঐ কাজের ভান্ডারে একষট্টি হ্যাঁজার অদর্কোন সোনা ও পাঁচ হাজার মানি রূপা ও যাজকদের জন্য একশোটি পোশাক দিল৷ 70 ৭০ পরে যাজকেরা, লেবীয়েরা ও অন্যান্য লোকেরা এবং গায়কেরা, দারোয়ানরা ও নথীনীয়েরা নিজেদের নগরে এবং সমস্ত ইস্রায়েল নিজেদের নগরে বাস করল৷