বংশাবলির প্রথম খণ্ড 24

1 হারোণের বংশের লোকদের বিভিন্ন দলে ভাগ করা হয়েছিল। হারোণের ছেলেরা হল নাদব, অবীহূ, ইলীয়াসর ও ঈথামর। 2 হারোণ মারা যাবার আগেই নাদব ও অবীহূ কোনো ছেলে না রেখেই মারা গিয়েছিলেন; কাজেই ইলীয়াসর ও ঈথামর যাজকের কাজ করতেন। 3 সাদোক নামে ইলীয়াসরের একজন বংশধর এবং অহীমেলক নামে ঈথামরের একজন বংশধরের সাহায্যে দায়ূদ যাজকদের কাজ অনুসারে তাঁদের বিভিন্ন দলে ভাগ করে দিলেন। 4 এতে ঈথামরের বংশের লোকদের চেয়ে ইলীয়াসরের বংশের লোকদের মধ্যে অনেক বেশী নেতা পাওয়া গেল। সেইজন্য ইলীয়াসরের বংশের ষোলজন নেতার জন্য তাঁদের ষোল দলে এবং ইথামরের বংশের আটজন নেতার জন্য তাঁদের আট দলে ভাগ করা হল। 5 ইলীয়াসর ও ঈথামর, এই দুই বংশের নেতারা উপাসনা ঘরের ও ঈশ্বরের কর্মচারী ছিলেন বলে কারো পক্ষ না টেনে গুলিবাঁট করে যাজকদের কাজ ভাগ করা হল। 6 রাজা ও তাঁর উঁচু পদের কর্মচারীদের সামনে এবং সাদোক যাজক, অবিয়াথরের ছেলে অহীমেলক, যাজক বংশের নেতাদের ও লেবীয়দের সামনে নথনেলের ছেলে শময়িয় নামে একজন লেবীয় লেখক সেই নেতাদের নাম তালিকায় লিখলেন। পালা পালা করে ইলীয়াসরের বিভিন্ন বংশের মধ্য থেকে একজন ও তারপর ঈথামরের বিভিন্ন বংশের মধ্য থেকে এক জনের জন্য গুলিবাঁট করা হল। 7 তখন প্রথম বারে গুলি উঠল যিহোয়ারীবের নামে, দ্বিতীয় বারে যিদয়িয়ের, 8 তৃতীয় বারে হারীমের, চতুর্থ বারে সিয়োরীমের, 9 পঞ্চম বারে মল্কিয়ের, ষষ্ঠ বারে মিয়ামীনের, 10 ১০ সপ্তম বারে হক্কোষের, অষ্টম বারে অবিয়ের, 11 ১১ নবম বারে যেশূয়ের, দশম বারে শখনিয়ের, 12 ১২ এগারো বারে ইলীয়াশীবের, বারো বারে যাকীমের, 13 ১৩ তেরো বারে হুপ্পের, চৌদ্দ বারে যেশবাবের, 14 ১৪ পনেরো বারে বিল্‌গার, ষোল বারে ইম্মেরের, 15 ১৫ সতেরো বারে হেষীরের, আঠারো বারে হপ্পিসেসের, 16 ১৬ ঊনিশ বারে পথাহিয়ের, কুড়ি বারে যিহিষ্কেলের, 17 ১৭ একুশ বারে যাখীনের, বাইশ বারে গামূলের, 18 ১৮ তেইশ বারে দলায়ের ও চব্বিশ বারে মাসিয়ের নামে। 19 ১৯ তাঁদের পূর্বপুরুষ হারোণকে দেওয়া ইস্রায়েলের ঈশ্বর সদাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে হারোণ তাঁদের জন্য যে নিয়ম ঠিক করে দিয়েছিলেন সেইমত সদাপ্রভুর ঘরে গিয়ে সেবা কাজ করবার জন্য এই ভাবে তাঁদের পালা ঠিক করা হল। 20 ২০ লেবি গোষ্ঠীর বাকি বংশগুলোর কথা এই: অম্রামের বংশের শবূয়েল, শবূয়েলের বংশ নেতা যেহদিয় 21 ২১ রহবিয়ের কথা; রহবিয়ের বংশ নেতা যিশিয়। 22 ২২ যিষ্‌হরীয়দের বংশের বাবা শলোমোৎ ও শলোমোতের বংশ নেতা যহৎ। 23 ২৩ হিব্রোণের বংশের মধ্যে প্রথম যিরিয়, দ্বিতীয় অমরিয়, তৃতীয় যহসীয়েল এবং চতুর্থ যিকমিয়াম ছিলেন বংশের বাবা। 24 ২৪ ঊষীয়েলের ছেলে মীখা; মীখা ছেলেদের মধ্যে শামীর। 25 ২৫ মীখার ভাই যিশিয়; যিশিয়ের ছেলেদের মধ্যে সখরিয়। 26 ২৬ মরারির ছেলে মহলি, মূশি ও যাসিয়; যাসিয়ের বংশের বিনো 27 ২৭ মরারির ছেলে যাসিয়ের ছেলে বিনো, শোহম, শক্কুর ও ইব্রি ছিলেন বংশের বাবা। 28 ২৮ মহলির বংশের ইলীয়াসর ও কীশ; ইলীয়াসরের কোনো ছেলে ছিল না। 29 ২৯ কীশের বংশ নেতা ছিলেন যিরহমেল। 30 ৩০ মূশির বংশের মহলি, এদর ও যিরেমোৎ ছিলেন বংশের বাবা। বিভিন্ন বংশ অনুসারে এঁরা ছিলেন লেবীয়। 31 ৩১ এঁরাও রাজা দায়ূদ, সাদোক, অহীমেলক এবং যাজক ও লেবীয়দের বংশ নেতাদের সামনে এঁদের ভাইদের, অর্থাৎ হারোণের বংশের লোকদের মত করে গুলিবাঁট করেছিলেন। বড় ভাই হোক বা ছোট ভাই হোক তাদের সকলের জন্য একইভাবে গুলিবাঁট করা হয়েছিল।